বন্ধুসভার বন্ধুরা জানান, তাঁরা প্রতিবছর অসচ্ছল ও দরিদ্র পরিবারের শিশুদের ঈদের উপহার হিসেবে রঙিন জামা উপহার দেন। পাশাপাশি ঈদে খাওয়ার জন্য সেমাই, চিনি, সুজি, কিচমিচ, বাদাম ও দুধ বিতরণ করেন।
বন্ধুসভার পক্ষ থেকে নতুন জামা পেয়ে খুব আনন্দিত ছোট্ট শিশু মাহি আক্তার। মাহি জানায়, তারা উত্তর চর সাহাভিকারী এলাকায় আশ্রয়ণে বসবাস করে। সে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে। তাদের পরিবারে পাঁচ-ছয়জন সদস্য। তার বাবা দিনমজুর। এবার ঈদে পরিবারের কারও জন্য এখনো নতুন জামা কেনা হয়নি। সে রঙিন জামা পেয়ে খুব খুশি হয়েছে। আস্তে করে মাহি বলে, ‘বাড়িতে আমার একটা ছোট ভাই আছে, তার জন্য একটা জামা দেবেন?’ পরে তার সে ছোট ভাইটির জন্যও একটি জামা দেওয়া হয়। নতুন জামা পাওয়া সবাই উত্তর চর সাহাভিকারী এলাকার আশ্রয়ণ প্রকল্প ১, ২ ও ৩–এর বাসিন্দা।
রহিমা আক্তার নামের এক নারী জানান, তাঁর স্বামী অসুস্থ হয়ে ঘরে পড়ে আছেন। ছেলেদের আয়রোজগার নেই। ঈদ চলে এলেও সেমাই, চিনি ও নতুন জামা কেনা হয়নি। বন্ধুসভার পক্ষ থেকে সেমাই, চিনি পেয়ে তিনি খুব খুশি।

অনুষ্ঠান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন