default-image

‘জাতীয় পতাকা দিবস’ পালন করেছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় (জাককানইবি) বন্ধুসভা। ২ মার্চ মঙ্গলবার রাত আটটায় গুগল মিটের মাধ্যমে ভার্চ্যুয়াল এ আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজন শুরু হয় জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে। আলোচনা পর্বের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন জাককানইবি বন্ধুসভার সহসভাপতি মাহমুদুল রাফিক।

জাককানইবি বন্ধুসভার উপদেষ্টারা জাতীয় পতাকা দিবস সম্পর্কে বিশদ ও তথ্যবহুল আলোচনা করেন। বক্তব্য দেন থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্ট্যাডিস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান আল জাবির, ফোকলোর বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান মো. বাকীবিল্লাহ, দর্শন বিভাগের প্রভাষক তারিফুল ইসলাম ও জাককানইবি বন্ধুসভার সাবেক সভাপতি মো. ইউসুফ।

মো. ইউসুফ জাতীয় পতাকা দিবস নিয়ে বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করেন। তারিফুল ইসলাম পতাকা উত্তোলন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। মো. বাকীবিল্লাহ বলেন, ‘ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

আল জাবির জাতীয় পতাকা, জাতীয় সংগীত, জাতীয় প্রতীক—এই তিনটি বিষয়ের ইতিহাসকে পাঠ্যপুস্তকে তুলে ধরার আহ্বান জানান।

আলোচনায় আরও অংশগ্রহণ করেন সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক রাফিয়া ইসলাম ভাবনা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বাপ্পী, উপসাংগঠনিক সম্পাদক ডি এইচ রনি, পাঠচক্র সম্পাদক অনামিক সিংহ ঊর্মি, পাঠাগার সম্পাদক রুকসানা অর্পা, যোগাযোগ সম্পাদক তানভীর আহামেদ, প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক সম্রাট পারভেজ, দুর্যোগ ও ত্রাণবিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান পল্লব, প্রচার সম্পাদক মাযহার সাদি, সাহিত্য সম্পাদক তাহমিদা তানজিম তালুকদার, অনুষ্ঠান সম্পাদক আতিয়া শারমিলা আঁখি, অর্থ সম্পাদক জামাল আহমেদ, তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক কাওসার হোসাইন প্রমুখ।

আয়োজনের উপস্থাপনা করেন জাককানইবি বন্ধুসভার বন্ধু আতিয়া শারমিলা আঁখি ও তানভীর আহমেদ। সভাপতি মানছুরা বিনতে আমিন সমাপনী বক্তব্য দেন এবং আয়োজন সফলভাবে সম্পন্ন হওয়ায় সবার কাছে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

কার্যক্রম থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন