default-image


নাম তার আইরিন নাহার স্বর্ণা। দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। পিতা মো. বজলুর রশীদ। বর্তমানে থাকে চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ থানার অন্তর্গত রহমান নগর আবাসিক এলাকায় মা-বাবা ও ছোট ভাইয়ের সঙ্গে ভাড়া বাসায়। সব ঠিকঠাকমতো চলছিল। প্রতিদিন নিয়মিত স্কুলেও যেত। একদিন হঠাৎ তার পরিবারের লোকজন খেয়াল করলেন, মেয়ের হাতে চাপ দিলে কালো হয়ে যাচ্ছে। তাঁরা তাড়াতাড়ি ডাক্তার দেখালেন। ডাক্তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানালেন, মেয়ের গায়ে বাসা বেঁধেছে মরণব্যাধি ক্যানসার। ডাক্তারের পরামর্শ, প্রাথমিক পর্যায়ে আছে, সঠিক চিকিৎসা পেলে সুস্থ হয়ে উঠবে। তার পরিবারের লোকজন স্বর্ণার চিকিৎসায় নেমে পড়লেন।
বলছি সেই ১৮ মে ২০১৮ সালের কথা, যখন স্বর্ণার ক্যানসার ধরা পড়েছিল। এ পর্যন্ত তাঁরা স্বর্ণাকে চট্টগ্রাম, ঢাকা ও ভারতের Christian Medical College-CMC (ভেলোর, চেন্নাই)-এ চিকিৎসা দিয়েছেন। এ পর্যন্ত স্বর্ণার চিকিৎসা বাবদ তার পরিবার ৫০-৫৫ লাখ টাকা খরচ করেছেন। বর্তমানে স্বর্ণা ভারতের সিএমসিতে চিকিৎসাধীন। ডাক্তারের পরামর্শ হলো, কেমোথেরাপি শেষ হওয়ার পর খুব দ্রুত বোনম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট করতে হবে। এতে প্রায় আরও ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকা খরচ হবে। চিকিৎসাধীন ডাক্তারের নাম কুলকারানি উদয় প্রকাশ, ডিপার্টমেন্ট অব হেমাটলজি, সিএমসি, ভেলোর , চেন্নাই, ইন্ডিয়া। কিন্তু স্বর্ণার পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী তাঁর বাবা চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তিনি ইতিমধ্যে মেয়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে সর্বস্বান্ত হয়েছেন। তাঁর পক্ষে মেয়ের পরবর্তী চিকিৎসার খরচ বহন করা সম্ভব নয়। তাই তিনি সমাজের সুহৃদ ও বিত্তবানদের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন, সবাই যেন তাঁর মেয়ের চিকিৎসায় আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা

১. ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক
মো. বজলুর রশিদ
অ্যাকাউন্ট নম্বর: ০৭৬-৩২০১-০০০০৪১৬২২
সিডিএ এভেনিউ, চট্টগ্রাম ।

২. ডাচ বাংলা ব্যাংক
মো. বজলুর রশিদ
অ্যাকাউন্ট নম্বর: ১২৯-১০১-১১৩২০৬
সিডিএ এভেনিউ, চট্টগ্রাম ।

বিকাশ: ০১৭১৫-২৬৬৩৩৯
রকেট: ০১৮৭১-০৪৩২০৪-৩

মো. বজলুর রশিদ
মোবাইল নম্বর: ০১৭১৫-২৬৬৩৩৯, ০১৮৭১-০৪৩২০৪

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0